আজ বৃহস্পতিবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২০ ইং

বিয়ানীবাজারে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৭

বিয়ানীবাজারে ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনকালে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে ছাত্রলীগের ৭ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। শনিবার (০৪ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় পৌরশহরের প্রমথনাথ দাস রোডে (কলেজ রোড) এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

আহত ছাত্রলীগ নেতারা হচ্ছেন- ফখরুল ইসলাম, মুরাদ আহমদ, আশরাফুল হক রুনু, সালাহ উদ্দিন, জাকারিয়াসহ আরো ৩জন। পরে আহত ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের উদ্ধার করে বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করা হয়। আহতদের মধ্যে জুনেদ আহমদ (১৮), ফখরুল ইসলাম (২০) ও জাকির হোসেন (২১)কে সিলেট প্রেরণ করা হয়েছে।

জানা গেছে, ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিয়ানীবাজার উপজেলা ছাত্রলীগের বিদ্যমান গ্রুপগুলো পৃথক কর্মসূচির আয়োজন করে। ছাত্রলীগের রিভারবেল্ট ও স্বাধীন গ্রুপ পৃথক কর্মসূচি উদযাপনের এক পর্যায়ে দুটি গ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে কলেজ রোডে প্রথমে ধাক্কা-ধাক্কি ও হাতহাতি শুরু হয়। দু’গ্রুপের নেতাকর্মীরা বাকবিতণ্ডা জড়িয়ে পড়লে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। পরে দু’গ্রুপের মধ্যে কলেজ রোড ও টিএন্ডটি রোডে দেশীয় অস্ত্রের মহড়া ও ইট-পাঠকেল নিক্ষেপ শুরু হয়। সংঘর্ষ চলাকালে দু’গ্রুপের ৭ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে, সংঘর্ষের খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ এবং ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এ প্রতিবেদন লিখা পর্যন্ত ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের নেতাকর্মীদের পৌরশহরের পৃথক দু’স্থানে অবস্থান করতে দেখা গেছে। যেকোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশকে পৌরশহরের বিভিন্ন সড়কে টহল দিতে দেখা গেছে।

বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনী শংকর কর বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত ও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ফের যাতে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য শহরে পুলিশ অবস্থান করছে। তিনি বলেন, এ ঘটনায় কোন পক্ষই থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি।

এ বিভাগের আরোও সংবাদ