আজ শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ইং

চিকিৎসার নামে নারীদের আটকে রেখে ধর্ষণ

অনলাইন ডেস্ক :: লালমনিরহাটে চিকিৎসার নামে ঝাড়-ফুঁকের কথা বলে দীর্ঘদিন ধরে নারীদের ঘরে আটকে ধর্ষণ করেন এমন অভিযোগ উঠেছে শ্রী অর্জুন লাল (৪৬) নামে এক কবিরাজের বিরুদ্ধে।

রবিবার তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন সদর থানা পুলিশ।

এর আগে শনিবার দিবাগত মধ্যরাতে সদর উপজেলার পৌরসভার উত্তর সাপটানা এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার বাবার নাম ফুলচাঁন রবি দাস বলে জানা গেছে।

পুলিশ জানায়, দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসার নামে নারীদের ঘরে আটকে রেখে ধর্ষণ করতেন অর্জুন লাল। সম্প্রতি ভুক্তভোগী এক নারী কবিরাজ লালের বাড়িতে গেলে ঝাড়-ফুঁকের কথা বলে নিজ ঘরে নিয়ে যান। ওই ঘরে এক পর্যায়ে নারীকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করেন কবিরাজ অর্জুন লাল। পরে কবিরাজকে ধাক্কা দিয়ে ঘরের বাইরে চলে আসেন ওই নারী। সদর থানায় এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ করলে পুলিশ ওই রাতেই কবিরাজকে গ্রেফতার করে।

লালমনিরহাট সদর থানার ওসি মাহফুজ আলম জানান, ভুক্তভোগী ওই নারী বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত কবিরাজকে দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

এ বিভাগের আরোও সংবাদ